June 21, 2021, 3:14 am

creativesoftbd.com

আজ খালেদা জিয়ার জামিন স্থগিতে শুনানি

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেয়া জামিন আদেশের বিরুদ্ধে দুদক ও রাষ্ট্রপক্ষের নিয়মিত আপিলের আবেদনের (লিভ টু আপিল) শুনানি আজ। একই সঙ্গে খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেয়া জামিনের ওপর আপিল বিভাগের স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার চেয়ে করা আবেদনেরও শুনানি হবে।

রাষ্ট্রপক্ষ ও দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা পৃথক দুটি আবেদন সুপ্রিমকোর্টের রবিবারের কার্যতালিকায় রয়েছে। প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে চার সদস্যের আপিল বিভাগের বেঞ্চে এ বিষয়ে শুনানির জন্য এ তালিকার ৯ ও ১০ নম্বরে রাখা হয়েছে।

আদালত সংশ্লিষ্টরা জানান, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় আপিল বিভাগ থেকে জামিন পেলেও শিগগিরই মুক্তি পাচ্ছেন না খালেদা জিয়া। কারণ কুমিল্লার একটি নাশকতার মামলায় খালেদা জিয়াকে প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট (পিডব্লিউ) দেখানো হয়েছে। আগামী ২৮ মার্চ ওই মামলায় তাকে হাজির করার জন্য কারাগারে এ সংক্রান্ত হাজিরা পরোয়ানা পাঠানো হয়েছে। সে ক্ষেত্রে ওই মামলায় জামিন না হওয়া পর্যন্ত খালেদা জিয়া মুক্তি পাবেন না।

জানতে চাইলে খালেদা জিয়ার প্যানেল আইনজীবী অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, বয়সসহ চারটি গ্রাউন্ডে হাইকোর্ট খালেদা জিয়াকে জামিন দিয়েছেন। চেম্বার জজ আদালত আমাদের কথা না শুনেই জামিন স্থগিত করেন। আপিল বিভাগের স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার চেয়ে আবেদন করেছি। রবিবার সে আবেদনেরও শুনানি হবে।

হাইকোর্টের জামিন শেষ পর্যন্ত বহাল না থাকলে পরবর্তী সময়ে কী করণীয় হবে জানতে চাইলে প্রবীণ আইনজীবী খন্দকার মাহবুব বলেন, আমরা আশা করছি আপিল বিভাগ হাইকোর্টের জামিন বহাল রাখবেন। এ ধরনের মামলায় সাধারণত সর্বোচ্চ আদালত জামিন বহাল রাখেন। অতীতে এমন মামলায় জামিন স্থগিতের কোনো নজির নেই। এরপরও জামিন বহাল না থাকলে মনে করব দেশে আইনের শাসন নেই। বিচার বিভাগ সরকারের কথা মতোই চলছে।

খালেদা জিয়ার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া বলেন, এ মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন হবে বলে আশা করছি। জামিন হলে জামিননামা কারাগারে দাখিল করা হবে। তবে জামিন না হলে সরকারের কৌশল দেখে পরবর্তী আইনি লড়াই করব।

দুদকের আইনজীবী অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান বলেন, যে চারটি গ্রাউন্ডে হাইকোর্ট জামিন দিয়েছেন তা খালেদা জিয়ার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নয়। দুদকের পক্ষ থেকে খালেদা জিয়ার জামিনের বিরোধিতা করা হবে। তিনি বলেন, কোনো কারণে রোববার লিভ টু আপিলের শুনানি না হলে স্থগিত আদেশের মেয়াদ বৃদ্ধি চেয়ে অর্থাৎ লিভ টু আপিল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত স্থগিতাদেশ চাওয়া হবে।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫-এর বিচারক ড. আক্তারুজ্জামানের আদালত খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন। রায়ের পর থেকে কারাগারে আছেন খালেদা জিয়া।

creativesoftbd.com

     আজকের খবর বিডি কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

  

জরুরি সেবা ফোন নাম্বার