June 21, 2021, 4:49 am

creativesoftbd.com

কমলগঞ্জে সাংবাদিক নামদারি আব্দুল বাছিতের উপর বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠছে নিজ গ্রামের জনতা

কমলগঞ্জে সাংবাদিক নামদারি আব্দুল বাছিতের উপর বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠছে নিজ গ্রামের জনতা

 

কমলগঞ্জে সাংবাদিক পরিচয় ধারী আব্দুল বাছিত খান ওরফে বাছিত মিয়ার উপর বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন তার নিজ গ্রাম রামচন্দ্রপুর বাসী।

নিজস্ব প্রতিনিধি ঃ কমলগঞ্জে সাংবাদিক পরিচয় ধারী আব্দুল বাছিত খান ওরফে বাছিত মিয়ার উপর বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন তার নিজ গ্রাম রামচন্দ্রপুর বাসী। যে কোন তুচ্ছ ঘটনার ভিডিও করে ফেইসবুকে ও নিউজ করার ভয় দেখিয়ে টাকা আদায় তার পেশা হয়ে দাঁড়িয়েছে। তেমনি এক ঘটনায় স্থনীয়দের অনুরোধ সত্তেও “কমলগঞ্জের রহিমপুর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডে প্রতারণা করে বিয়ে করতে এসে ৩ সন্তানের জনক বর ও ঘটককে আটক করে স্থানীয়রা” শিরোনামে বিয়ের বর ও ঘটকের ছবি ফেসবুকে পোস্ট করাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের বাক-বিতন্ডার ঘটনায় স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বারকে জড়িয়ে মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন ও ফেসবুকে অপপ্রচারে আব্দুল বাছিত খান ওরফে বাছিত মিয়ার উপর বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন রামচন্দ্রপুর গ্রামবাসী। ৭ আগষ্ট দু’পক্ষের বাক-বিতন্ডার পর আব্দুল বাছিত খান ওরফে বাছিত মিয়া এবং ৯ আগষ্ট ওয়াতির মেম্বার কমলগঞ্জ থানায় পাল্টাপাল্টি জিডি করেন। ঘটনাটি নিয়ে বাছিত মিয়া ও ওয়াতির মেম্বারের মধ্যে চলছে কাঁদা ছুড়াছুড়ি। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ঘটেছে গত ৭ আগষ্ট শুক্রবার মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার ১নং রহিমপুর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডস্থিত রামচন্দ্রপুর গ্রামে। ১৩ আগষ্ট বৃহষ্পতিবার বিকেল ৩টায় রামচন্দ্রপুর গ্রামে বাছিত মিয়ার বিরুদ্ধে মানববন্ধনের আয়োজন করে গ্রামবাসী। মানববন্ধন আয়োজনের সংবাদ পেয়ে সরেজমিন রামচন্দ্রপুর গ্রামে গেলে জানা যায়, থানা প্রশাসন নিষেধাজ্ঞা দেয়ায় মানববন্ধন হচ্ছেনা।
ঘটনাস্থলে উপস্থিত বিপুল সংখ্যক লোকজন জানান- গত ৭ আগষ্ট শুক্রবার গ্রামের রইছ মিয়ার প্রতিবন্ধী মেয়ের বিয়ের অনুষ্ঠানে গিয়ে ওয়াতির মেম্বার জানতে পারেন বর আরেকটি বিয়ে করেছে তাই কনেপক্ষ তার কাছে মেয়ে বিয়ে দিতে রাজি নন। তখন ওয়াতির মেম্বার বরের ওয়ার্ড মেম্বার মুজিবুর রহমানকে ফোন করে ঘটনাস্থলের আসার অনুরোধ করেন। কিছুক্ষণ পর মুজিব মেম্বারের ভাই মুকিত মিয়াসহ কালেঙ্গা এলাকার কয়েকজন মুরুব্বি ঘটনাস্থলে আসলে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা শুরু হয়। এমতাবস্থায় মুজিব মেম্বারও ঘটনাস্থলে আসেন। এসময় বাছিত মিয়া ও সেখানে উপস্থিত ছিলেন। মুজিব মেম্বার বরকে দেখে চিনতে পেরে জানান, তার স্ত্রী থাকলেও ৬/৭ বছর যাবৎ বিদেশে এবং তার সাথে কোনো যোগাযোগ নেই। তবে বর ভালো, তার কাছে মেয়ে বিয়ে দিতে পারেন। এরপর বিয়ে সম্পন্ন হয়। কাবিননামায় বরের পক্ষে মুজিব মেম্বার মেয়ের পক্ষে ওয়াতির মেম্বার স্বাক্ষী হন।
এর কিছুক্ষণ পর বাছিত মিয়া ও স্থানীয় যুবকদের মধ্যে বর ও ঘটকের ছবি ফেসবুকে পোস্ট করা নিয়ে কথা কাটাকাটি শুনে ওয়াতির মেম্বার এগিয়ে গিয়ে ‘কি হয়েছে’ জানতে চাইলে যুবকরা জানায়, এলাকার মুরুব্বিরাসহ আমরা সবাই বর ও ঘটকের ছবি ফেসবুকে পোস্ট না করার অনুরোধ সত্তেও তিনি তা ফেসবুকে পোস্ট করেছেন। তখন ওয়াতির মেম্বার বলেন আচ্ছা ঠিক আছে তোমরা তার সাথে খারাপ আচরণ করবেনা। সে এগুলো কেটে দিবে। তখন বাসিতও বলেন ছবিগুলো ফেসবুক থেকে কেটে দিবেন। এরপর সবাই ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। কিন্তু বাছিত মিয়া এর কয়েকঘন্টার মধ্যেই ওয়াতির মেম্বারকে জরিয়ে ফেসবুকে অপপ্রচার শুরু করেন। পরদিন বিয়েবাড়ির মালিক জানান “ গতরাতে বাছিত মিয়া বাড়িতে এসে বলে “ক্যামেরা দিয়ে ছবি তুলেছি, নেটে ছেড়েছি, এখানে খরচ আছে, এখন এটা কাটতে হলে ১ হাজার টাকা লাগবে। এ নিয়ে বাছিত মিয়ার সাথে কথা কাটাকাটি হয়েছে”।
উপস্থিত লোকজন বলেন, বাছিত মিয়ার সহযোগিতায় তার চাচা আব্দুল খালিক এনআইডি কার্ড জালিয়াতির মাধ্যমে বয়স্ক ভাতা তুলে আসছিলেন। ওয়াতির মেম্বার ওই এনআইডি কার্ডটি চেয়ারম্যানের হাতে তুলে দিয়েছিলেন এবং চেয়ারম্যান ওই এনআইডি কার্ডের অনুকুলে বয়স্ক ভাতা বন্ধ করিয়েছিলেন। সেইথেকেই যেকোন ঘটনার সাথে কোনরকম সংশ্লিষ্টতা না থাকা সত্তেও বাছিত নানা ছলছুতায় ওয়াতির মেম্বারের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালিয়ে আসছে। শুধু ওয়াতির মেম্বারই নয়, এলাকায় কোন কিছু হলেই মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন ও ফেসবুকে অপপ্রচারের মাধ্যমে লোকজনকে হয়রানী করে থাকে। সাংবাদিক পরিচয়ের সুবাদে পুলিশ প্রশাসনের সাথে সম্পর্ক থাকায় ভয়ে অনেকেই প্রতিবাদ করতে যাননি। এ গ্রামেরই বাসিন্দা হয়েও সে এলাকার লোকজনকে অতীষ্ট করে তুলেছে। আমরা এর প্রতিকার চাই।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে অভিযুক্ত আব্দুল বাছিত খান ওরফে বাছিত মিয়া তার বিরুদ্ধে আনীত সকল অভিযোগ অস্বীকার করে জানান- ফেসবুকে পোস্ট দেয়ার কারণে ওয়াতির মেম্বারের নেতৃতেই আমার উপর হামলা চালানো হয়েছে।
ওয়াতির মেম্বার বাছিত মিয়ার অন্যান্য কিছু ঘটনাসহ প্রায় হুবহু উপরোক্ত বক্তব্য দিয়ে বলেন- সত্য ঘটনাবলী জনসমক্ষে তুলে ধরবেন বলেই আমি সত্যসন্ধানী জাতির বিবেকের প্রতি আশাবাদী।

 

creativesoftbd.com

     আজকের খবর বিডি কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

  

জরুরি সেবা ফোন নাম্বার