June 24, 2021, 2:41 am

creativesoftbd.com

কোটা ব্যবস্থা সংস্কার নিয়ে বাংলার শ্রেষ্ঠ সন্তানদের অবমূল্যায়ন করা হচ্ছে।

কোটা ব্যবস্থা সংস্কার নিয়ে বাংলার শ্রেষ্ঠ সন্তানদের অবমূল্যায়ন করা হচ্ছে। এমনটি মন্তব্য করেছেন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান কাজী গোলাম কিবরিয়া ও এইচ, এম, মাসুদুর রহমান ।
অনেকে বলছে দেশটি তার নিজের, নিজেদের সুবিধা লাভের জন্য কি মুক্তি সংগ্রাম করেছিল? আরও বলে তাহলেত পাকিস্থান থাকাই ভাল ছিল।

অবশ্যই না। কোন মুক্তিযোদ্ধাই দেশটা নিজের করে নেয়া ও নিজের সুবিধার জন্য নিজের জীবন বাজি রেখে যুদ্ধ করেনি। বাংলার নিপীড়িত মানুষের মুক্তির জন্য সংগ্রাম করেছে।

আর যারা বলেন পাকিস্থান থাকাই ভালছিল, আমরা তাদের উদ্দেশ্যে বলতে চাই, ৩০% সহ যারা আছেন তারা সবাই বাংলাদেশি। আর ৭১ আগে কত % মানুষ সরকারি পদে অবহিত ছিল? যারা বলেন পাকিস্থান থাকাই ভাল ছিল তাদের কাছে এই প্রশ্নটা থাকল।

মুক্তিযোদ্ধা কোটা হচ্ছে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার কতৃক মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি সম্মাননা। যাহা কোন মুক্তিযোদ্ধা ও তার পরিবার কখনোই দাবি করেনি। মুক্তিযোদ্ধাদের কোটা সুবিধা দেয়া হয়েছে বলেই তারা সুবিধা গ্রহণ করছে, তানাহলে তারা এবং তার পরিবার কখনোই কোটার জন্য আন্দোলন করেনি।

কারণ প্রতিটি মুক্তিযোদ্ধাই চাই দেশের সকল মানুষই ভাল থাক ও অর্থনৈতিক মুক্তিপাক। এই মুক্তি জন্যই হয়েছিল মুক্তিযোদ্ধ। আজ কোটা নিয়ে যাকিছু হচ্ছে তা একজন মুক্তিযোদ্ধাকে অপমান করা ছাড়া আর কিছুই না। আমরা একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হিসেবে বলতে চাই, আমাদের সুবিধার জন্য আমাদের পিতার অপমান কোন ভাবেই কাম্য নয়।

যেহেতু দেশের জনগন চাচ্ছে এই কোটা ব্যবস্থা সংস্কার,সেহেতু কোটা ব্যবস্থা সংস্কার করা সময়ের দাবি।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ, দেশের শ্রেষ্ঠ সন্তানদের অপমানের হাত থেকে রক্ষা করুন।

creativesoftbd.com

     আজকের খবর বিডি কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

  

জরুরি সেবা ফোন নাম্বার