June 22, 2021, 2:45 pm

creativesoftbd.com

পুঁজিবাজারে তালিকাভূক্ত কোম্পানির সংখ্যা বেড়েছে ১৬০ শতাংশ

ঢাকাঃ-প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে বিদায়ী ২০১৭-১৮ অর্থবছরে পুঁজিবাজারে তালিকাভূক্ত কোম্পানির সংখ্যা বেড়েছে ১৬০ শতাংশ।

২০১৬-১৭ অর্থবছরে যেখানে ৫টি কোম্পানিকে আইপিও’র মাধ্যমে অর্থ সংগ্রহের অনুমোদন দেওয়া হয়েছিল, সেখানে ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ১৩টি কোম্পানিকে আইপিও’র মাধ্যমে অর্থ সংগ্রহের অনুমোদন দেওয়া হয়। অর্থাৎ আগের অর্থবছরের তুলনায় বিদায়ী অর্থবছরে আইপিও অনুমোদনের সংখ্যা বেড়েছে ১৬০ শতাংশ। বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ (বিএসইসি) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, ২০১৬-১৭ অর্থবছরে যেখানে ৫টি কোম্পানির অর্থ উত্তোলনের পরিমাণ ছিল ৪৫২ কোটি ৯০ লাখ টাকা, সেখানে ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ১৩ কোম্পানির অর্থ উত্তোলনের পরিমাণ ছিল ৫৭২ কোটি ২৫ লাখ টাকা। অর্থাৎ এক বছরের ব্যবধানে অর্থ সংগ্রহের পরিমাণ বেড়েছে ১১৯ কোটি ৩৫ লাখ টাকা বা ২৬.৩৫ শতাংশ।

প্রাপ্ত তথ্যমতে, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ১৩টি কোম্পানিকে মোট ৪২ কোটি ৪৯ লাখ ৫৩ হাজার ৭৫৭টি শেয়ার ইস্যু করার মাধ্যমে ৫৭২ কোটি ২৫ লাখ টাকা উত্তোলনের অনুমোদন পায়। কোম্পানিগুলো হলো- ওয়াইমেক্স ইলেকট্রোড, নাহি অ্যালুমিনিয়াম অ্যান্ড কম্পোজিট প্যানেল, কুইন সাউথ টেক্সটাইল, অ্যাডভেন্ট ফার্মা, ইন্ট্রাকো রিফুয়েলিং স্টেশন, এস কে ট্রিমস এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ, এমএল ডাইং, ভিএফএস থ্রেড ডাইং, সিলভা ফার্মাসিটিক্যাল, কাট্টলি টেক্সটাইল, ইন্দো-বাংলা ফার্মাসিটিক্যাল, আমরা নেটওয়ার্কস, বসুন্ধরা পেপার মিলস ও আমান কটন ফাইবার্স লিমিটেড। এর মধ্য আমরা নেটওয়ার্কস, বসুন্ধরা পেপার ও আমান কটনকে বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে টাকা উত্তোলনের অনুমোদন দেওয়া হয়।

তথ্যানুযায়ী, অভিহিত মূল্যে ওয়াইমেক্স ইলেকট্রোড ১ কোটি ৫০ লাখ শেয়ার ছেড়ে ১৫ কোটি টাকা, নাহি অ্যালুমিনিয়াম ১ কোটি ৫০ লাখ শেয়ার ছেড়ে ১৫ কোটি টাকা, কুইন সাউথ টেক্সটাইল ১ কোটি ৫০ লাখ শেয়ার ছেড়ে ১৫ কোটি টাকা, অ্যাডভেন্ট ফার্মা ২ কোটি শেয়ার ছেড়ে ২০ কোটি টাকা, ইন্ট্রাকো রিফুয়েলিং স্টেশন ৩ কোটি শেয়ার ছেড়ে ৩০ কোটি টাকা, এস কে ট্রিমস এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ ৩ কোটি শেয়ার ছেড়ে ৩০ কোটি টাকা, ভিএফএস থ্রেড ডাইং লিমিটেড ২ কোটি ২০ লাখ শেয়ার ছেড়ে ২২ কোটি টাকা, এমএল ডাইং ২ কোটি শেয়ার ছেড়ে ২০ কোটি টাকা, ইন্দো-বাংলা ফার্মা ২ কোটি শেয়ার ছেড়ে ২০ কোটি টাকা, সিলভা ফার্মাসিটিক্যাল ৩ কোটি শেয়ার ছেড়ে ৩০ কোটি টাকা, কাট্টলি টেক্সটাইল লিমিটেড ৩ কোটি ৪০ লাখ সাধারণ ছেড়ে ৩৪ কোটি টাকা সংগ্রহ করার অনুমতি পায়।

অন্যদিকে, বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে আমরা নেটওর্য়াক ১ কোটি ৫০ লাখ ৪১ হাজার ২০৯টি সাধারণ শেয়ার ইস্যু করে ৫৬ কোটি ২৫ লাখ টাকা উত্তোলন করার অনুমতি পায়। এর মধ্যে ৯০ লাখ ১৪ হাজার ৪২৩টি সাধারণ শেয়ার ৩৯ টাকায় প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা কিনে এবং ৬০ লাখ ২৬ হাজার ৭৮৬টি সাধারণ শেয়ার ১০ শতাংশ কম দরে অর্থাৎ ৩৫ টাকায় সাধারণ বিনিয়োগকারীরা কিনে।

বসুন্ধরা পেপার মিলস ২ কোটি ৬০ লাখ ৪১ হাজার ৬৬৭টি শেয়ার ইস্যু করে ২০০ কোটি টাকা সংগ্রহ করার অ্নুমতি পায়। এর মধ্যে ১ কোটি ৫৬ লাখ ২৫ হাজার শেয়ার ৮০ টাকা দরে যোগ্য বিনিয়োগকারীরা নেয়। বাকী ১ কোটি ৪ লাখ ১৬ হাজার ৬৬৬টি শেয়ার ৭২ টাকা করে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে বিক্রি করা হয়।

আমান কটন ফাইবার্স লিমিটেড ১ কোটি ২৫ লাখ শেয়ার ইস্যু করে ৮০ কোটি টাকা সংগ্রহ করার অনুমতি পায়। কোম্পানিটির শেয়ারের কাট-অফ প্রাইস নির্ধারিত হয় ৪০ টাকা। সেই হিসাবে ১০ শতাংশ কম দরে অর্থাৎ ৩৬ টাকা দরে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা শেয়ার কিনে। আর প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা কিনে ৪০ টাকা দরে।

এদিকে, ২০১৬-১৭ অর্থবছরে ৫টি কোম্পানি ১৫ কোটি ৫০ লাখ শেয়ার ছেড়ে পুঁজিবাজার থেকে ৪৫২ কোটি ৯০ লাখ টাকা উত্তোলনের অনুমোদন পায়। কোম্পানিগুলো হলো- ফরচুন সুজ, শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজ, নূরানী ডাইং, বিবিএস ক্যাবলস ও এ্যাকমি ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড। এর মধ্য এ্যাকমি ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে টাকা উত্তোলনের অনুমোদন পায়।

তথ্যানুযায়ী, অভিহিত মূল্যে ফরচুন সুজ লিমিটেড ২ কোটি ২০ লাখ শেয়ার ছেড়ে ২২ কোটি টাকা, শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজ ২ কোটি শেয়ার ছেড়ে ২০ কোটি টাকা, নূরানী ডাইং ৪ কোটি ৩০ লাখ শেয়ার ছেড়ে ৪৩ কোটি টাকা এবং বিবিএস ক্যাবলস লিমিটেড ২ কোটি শেয়ার ছেড়ে ২০ কোটি টাকা সংগ্রহ করে।

অন্যদিকে, বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে এ্যাকমি ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছে ৮৫.২০ টাকা দরে ৩০ কোটি শেয়ার এবং সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে ৭৭ টাকা দরে ৫ কোটি শেয়ার ছেড়ে ৪০৯ কোটি ৬০ লাখ টাকা সংগ্রহ করে।

creativesoftbd.com

     আজকের খবর বিডি কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

  

জরুরি সেবা ফোন নাম্বার