June 24, 2021, 2:19 am

creativesoftbd.com

ভয়াবহ সংক্রমণের পথে পাকিস্তান, জুলাইয়ে আক্রান্তের সংখ্যা ১২ লাখে পৌঁছবে  

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ  ভয়াবহ হারে করোনা সংক্রমিত হচ্ছে দক্ষিণ এশিয়ার রাষ্ট্র পাকিস্তানে। দেশটির কর্মকর্তারা আশঙ্কা করছেন, এই গতিতে সংক্রমণ অব্যাহত থাকলে জুলাই মাসের মধ্যেই পাকিস্তানে আক্রান্তের সংখ্যা ১২ লাখ ছাড়িয়ে যাবে। দারিদ্রতার দোহাই দিয়ে বরাবরই লকডাউনের বিরোধীতা করে গেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তবে ভয়াবহ এ ভবিষ্যতের কথা ভেবে পাক কর্মকর্তারা এখন আবারো কঠিন স্বাস্থ্যবিধি মানার বিষয়ে আহ্বান জানিয়েছেন।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত পাকিস্তানে কোভিড নাইন্টিনে আক্রান্তের সংখ্যা দের লাখ ছুঁই ছুঁই করছে। এরমধ্যে প্রাণ হারিয়েছেন ২ হাজার ৭২৯ জন। রোববার পাকিস্তানে একদিনেই প্রায় ৭০০০ করোনা রোগি শনাক্ত হয়। প্রতিনিয়ত বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা।

তবে পর্যাপ্ত টেস্ট না হওয়ায় প্রকৃত অবস্থা জানা যাচ্ছে না বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।
পাকিস্তানে করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলার দায়িত্বে নিয়োজিত ন্যাশনাল কমান্ড অ্যান্ড অপারেশন সেন্টারের প্রধান আসাদ উমর বলেন, সংক্রমণ পরিস্থিতি অবনতি সরকারের জন্য গভীর উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। রোববার ইসলামাবাদে এক সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, বর্তমান পরিস্থিতির পরিবর্তন ঘটানো না গেলে জুনের শেষ নাগাদ আক্রান্ত সংখ্যা ৩ লাখে পৌঁছাবে। একইসঙ্গে জুলাইয়ের শেষ নাগাদ তা ১২ লাখ ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে আমাদের স্বাস্থ্যবিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন।

 

দীর্ঘদিন ধরেই ধুকছে পাক অর্থনীতি। বছর বছর বাড়ছে ঋনের বোঝা। এরমধ্যে নেই রপ্তানি। খাদের কিনারায় থাকা পাক অর্থনীতির জন্য বড় আঘাত হয়ে আসে করোনা। দারিদ্রতার কথা ভেবে প্রথম থেকেই লকডাউনের বিরোধিতা করে গেছেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। সাময়িক লকডাউন দিলেও গত মাসেই তা আবার খুলে দেয়া হয়েছে। এরপর থেকেই করোনার সংক্রমণ বাড়তে শুরু করে। দেশটির কয়েক কোটি দারিদ্র পীড়িত মানুষের জীবিকা সংস্থানের জন্য ওই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। কিন্তু এরপর সরকারি কর্মকর্তা, এমপি থেকে শুরু করে অনেকেই ভাইরাসে আক্রান্ত হন।

creativesoftbd.com

     আজকের খবর বিডি কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

  

জরুরি সেবা ফোন নাম্বার