June 23, 2021, 7:35 pm

creativesoftbd.com
barcelona Vs valencia
barcelona Vs valencia

শিরোপার পথে বার্সেলোনা

চার দিন আগের বিবর্ণ বার্সেলোনা লা লিগাতে আছে চেনা রূপেই। ভালেন্সিয়াকে হারিয়ে শিরোপা পুনরূদ্ধারের পথে
পুরো তিন পয়েন্ট বার্সেলোনাকে আরও একটু এগিয়ে নিল শিরোপার কাছে ।শেষ ৬ ম্যাচ থেকে আর মাত্র ৭ পয়েন্ট চাই তাদের লিগ শিরোপা পুনরুদ্ধার করতে।

শনিবার কাম্প নউয়ে খেলতে নেমে ১৫ মিনিটে লুইস সুয়ারেজে গোলে এগিয়ে যাওয়ার পরও ব্যবধান বাড়িয়ে নিতে পারছিল না বার্সেলোনা। ৫১ মিনিটে কর্নার থেকে উড়ে আসা বলে মাথা ছুঁইয়ে ২-০ করেন স্যামুয়েল উমতিতি। রক্ষণে যাঁর পারফরম্যান্স নিয়ে অনেকেরই প্রশ্ন। যদিও বার্সাকে ডোবাতে বসেছিলেন ডেমবেলে। তাঁর ফাউলে পেনাল্টি পেয়ে যায় ভ্যালেন্সিয়া। বাঁয়ে ঝাঁপিয়ে বলটা প্রায় রুখে দিলেও গোলটার লাইন পেরোনো থামাতে পারেনি গোলরক্ষক আন্দ্রে টের স্টেগেন। শেষ পর্যন্ত বার্সাকে পয়েন্ট হারাতে হয়নি। দুইয়ে থাকা অ্যাটলেটিকোর চেয়ে এক ম্যাচ বেশি খেলে ১৪ পয়েন্টে এগিয়ে থাকলেন লিওনেল মেসিরা। লিগে ৩২ ম্যাচ খেলে এখনো হারের স্বাদ পায়নি বার্সা। দুটি গোলই বানিয়ে দিয়েছেন ফিলিপে কুতিনহো। চ্যাম্পিয়নস লিগে যাঁর শূন্যতার বড় খেসারত দিতে হয়েছে বার্সাকে। মৌসুমের মাঝপথে চলে আসায় ব্রাজিল তারকা চ্যাম্পিয়নস লিগ খেলতে পারছেন না। তবে লিভারপুল এবার জিতলে চ্যাম্পিয়নস লিগের মেডেল তিনিও পাবেন। তবে ফেলে আসা সম্পর্কে পিছু তাকোনো নয়, কুতিনহো নিশ্চয়ই বার্সার হয়েই কিছু জিততে চান প্রথম মৌসুমেই।

টানা ৯ ম্যাচে অপরাজিত থেকে বার্সার মাঠে খেলতে এসেছিল ভ্যালেন্সিয়া। এবার পয়েন্ট টেবিলে রিয়াল মাদ্রিদেরও ওপরে আছে তারা। ম্যাচের চতুর্থ মিনিটে দারুণ একটি গোছালো আক্রমণ থেকে বার্সেলোকে বুঝিয়ে দিয়েছিল, পরের ৯০ মিনিটের মতো সময় বার্সার জন্য ততটা সুখকর হয়তো হবে না। বার্সা সমর্থকদের চোখেমুখে আগের ম্যাচে ৩-০ গোলে হেরে যাওয়ার শোকবিহ্বলতার ছাপ এখনো স্পষ্ট।

বার্সা দ্রুতই বলের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয়। তারই ফসল হিসেবে আসে সুয়ারেজের গোলটি। দুই সাবেক লিভারপুল তারকার যুগলবন্দী। কুতিনহোর এগিয়ে দেওয়া পাসে সুয়ারেজ খুঁজে নেন চেনা জাল। ভ্যালেন্সিয়ার বিপক্ষে এ নিয়ে ১০ গোল করলেন। বার্সার নাম লেখানোর পর আর কোনো দলের বিপক্ষে এতগুলো গোল নেই এই উরুগুইয়ানের। প্রথমার্ধে ওই ১ গোল। এই মৌসুমে বার্সাকে বেশি ক্ষুরধার দেখা গেছে দ্বিতীয়ার্ধে। আজও বার্সা, বিশেষ করে মেসিকে বেশ কয়েকটি দুর্দান্ত প্রচেষ্টায় সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে দেখা গেছে। কিন্তু বার্সা কিছুতেই গোল পাচ্ছিল না। অবশেষে কুতিনহোর কর্নারকে গোলে রুপান্তর করেন উমতিতি। অথচ এর আগের মিনিটে বার্সাকে ডোবাতে বসেছিলেন। পিকে ক্লিয়ার না করলে ওখানেই ১-১ হয়ে যেত। উমতিতির ওপর নাকি মেসি ভীষণ খাপ্পা। গত ম্যাচে উমতিতি খেলেছেনও যা-তা। তবে মেসি সবচেয়ে বেশি বিরক্ত হতে পারেন নিজের ওপরেই।

আজ ম্যাচে মেসির সবচেয়ে উজ্জ্বল সময় আসে ৭৭ মিনিটে। সুয়ারেজের পাস ধরে প্রায় একাই বল টেনে নিচ্ছিলেন। দুই ডিফেন্ডারকে নিজের সঙ্গে টেনে নিয়ে বক্সের প্রান্ত থেকে বাঁ পায়ের শট। কিন্তু বাঁ পোস্ট ঘেঁষে বেরিয়ে গেল। ডেম্বেলের ভুলে ভ্যালেন্সিয়া ২-১ করে ফেলার পরও মেসি আরও একটি উজ্জ্বল মুহূর্ত এনে দিয়েছেন। কিন্তু তাঁর বানিয়ে দেওয়া বলে গোলরক্ষকে সামনে একা পেয়েও জালে পাঠাতে পারেননি ডেনিস সুয়ারেজ।

শেষ পর্যন্ত বার্সাকে পয়েন্ট হারানোর দুঃখে পুড়তে হয়নি। বরং সামনের দুই ম্যাচে অ্যাটেলটিকো ১ পয়েন্ট হারালেও ফিরতি এল ক্লাসিকোর আগেই নিশ্চিত হয়ে যাবে বার্সার লিগ শিরোপা। রিয়াল তখন প্রথা মেনে চ্যাম্পিয়নদের গার্ড অব অনার দিক বা না দিক; চ্যাম্পিয়নস লিগের দুঃখ অনেকটাই ভুলে যাবে বার্সা!

creativesoftbd.com

     আজকের খবর বিডি কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

  

জরুরি সেবা ফোন নাম্বার