June 23, 2021, 8:03 am

creativesoftbd.com

সালমা-রুমানাদের জন্য ২ কোটি টাকা পুরস্কার

ঢাকা: হোটেল সোনারগাঁর বলরুম বিকেল থেকেই লোকে লোকারণ্য, বা বলা উচিত তারার মেলা। জাতীয় দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ, মুশফিকুর রহিমরা ছিলেন। মুস্তাফিজুর, লিটন, সৌম্যরা তো ছিলেনই। তারপরও তারা আজ হয়ে ছিলেন চাঁদ, সূর্য হয়ে তাঁদের ঢেকে দিলেন সালমারা। এশিয়া জয় করে আজ ঢাকায় ফিরেছেন বাংলাদেশের মেয়েরা, সোনারগাঁতে জাতীয় দলের ক্রিকেটাররাই তাদের দিলেন প্রথম সম্মান।

টিম বাসের অপেক্ষাতে হোটেলের ফটকের সামনে অপেক্ষা করছিলেন মুশফিক। ট্রফিটা নামতে সেটা ধরে এক পাক নেচেও নিলেন। এই ট্রফির জন্য কত আক্ষেপ, সেসব যেন এক মুহূর্তের জন্য ভুলে গেলেন। চারপাশ থেকে করতালি, এর মধ্যে এলিভেটরের দিকে এগুলেন সালমারা। সেখানে আরও বড় চমক, চওড়া হাসি নিয়ে অপেক্ষা করছিলেন সাকিব। হাত তালি দিয়ে সম্ভাষণ জানালেন বিজয়ীদের।

খানিক পরে সালমারা নেমে এলেন বলরুমে। সেখানে তাদের স্বাগত জানালেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। ছিলেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার। আর বিসিবি পরিচালকরা তো ছিলেনই। নাজমুল হাসান আগেই জানিয়েছেন, জাতীয় দলের জন্য প্রতি ক্রিকেটারের জন্য ১০ লাখ টাকা বোনাস। সব মিলে পুরো দল পাবে ২ কোটি টাকার সমান অঙ্কের পুরস্কার। ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় মেয়েদের জন্য বিশেষায়িত একাডেমি স্থাপনের ঘোষণা দিলেন। প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরে আসার পর আরও বড় কিছু আসবে, এমন আভাসও দিলেন। পুরস্কারের ডালি হাতে ছিল জাতীয় দলের পৃষ্ঠপোষক রবিও।

তবে এসব তো নিছক অর্থমূল্য। যে ভালোবাসায় মেয়েরা সিক্ত হয়েছেন, সেটা তো আর টাকা দিয়ে মাপা যায় না। জাহানারা যেমন বার বার বললেন, কাল থেকে যে ভালোবাসা দেশবাসীর কাছ থেকে পেয়েছেন তাতে তারা ভীষণ আপ্লুত। সালমাও বললেন, এই অনুভূতি ভাষায় প্রকাশ করতে পারবেন না।

কিন্তু শেষ বলে যখন দুই রান প্রয়োজন, জাহানারা-সালমার অনুভূতি কেমন ছিল? জাহানারা বললেন, স্ট্রাইকে নামার সময় গত আসরের এশিয়া কাপের কথা ঘুরছিল মাথায়। সেবার ৪২ বলে ৪৩ রান দরকার, সেখান থেকে হুড়মুড় করে ভেঙে পড়েছিল আমাদের ইনিংস। চাইছিলাম, এবার যেন তেমন কিছু না হয়।

জাহানারা জানান, শেষ বলে যখন স্ট্রাইক পেলেন, ঠিক করলেন আর যাই হোক বল ব্যাটে লাগাতেই হবে। অন্য পাশে গিয়ে সালমাকে বললেন, ‘আপা আপনি শুধু দৌড় দেবেন।’ ২১ বছর আগে এই কুয়ালালামপুরেই শান্তর সেই দৌড় জন্ম দিয়েছিল ইতিহাসের। জাহানারার আরেকটি দৌড়েই নতুন ইতিহাস লিখল বাংলাদেশ।

আর সালমা? বার বার চিন্তা করছিলেন, জাহানারা যেন বলটা ব্যাটে লাগাতে পারেন। সেটাই হয়েছে, যা কেউ ভাবেনি সেটাই সম্ভব করেছে বাংলাদেশ। হোটেল সোনারগাঁর বিকেলটা সাক্ষী হয়ে থাকল আবেগে ভেসে যাওয়া সেই সময়ের।

creativesoftbd.com

     আজকের খবর বিডি কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

  

জরুরি সেবা ফোন নাম্বার